আসসালামু আলাইকুম । কেমন আছেন বন্ধুরা ? আশা করি ভালো আছেন । আমিও আপনাদের দোয়ায় আলহামদুলিল্লাহ্ ভালো আছি । আজকে কোন ট্রিক নিয়ে লিখছি না । আজকে আলোচনা করবো FaceApp নামে একটা এপস্ নিয়ে । সোশিয়াল মিডিয়ার মাধ্যেমে FaceApp নামের এন্ড্রয়েড সফ্টওয়্যারটি এখন প্রচুর ভাইরাল হয়েছে ইতিমধ্যে । এই FaceApp এপটির ভালো মন্দ নিয়েই আজকে আমরা কথা বলবো । FaceApp নিয়ে অনেকের মধ্যে অনেক মতোবাদ আছে যদি আপনাদের মাঝে থাকে তাহলে আমি আশা করি আপনারা কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করার মাধ্যমে জানাবেন । তো চলুন আলোচনা শুরু করি ।

কিছুদিন ধরে প্রযুক্তির নামে এক নতুন ফেতনাহের আবিরভাব ঘটেছে সোশিয়াল মিডিয়া জগতে । এই ফেতনাটির নাম হচ্ছে FaceApp । এই এপটি মাধ্যমে আগামী ৪০ বছর পর বা ৬০ বছর কিংবা ৮০ বছর পর কেমন হবে ব্যবহার কারীর চেহারা এমন প্রশ্নের উত্তর খুজতে ব্যস্ত সময় পার করছেন সোশিয়াল মিডিয়া ব্যবহার কারীরা । প্রিয় দর্শকরা পোস্টটি সম্পুর্ন পড়ুন আর ভাবুন এই এপ ব্যবহারে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য হুমকি মুখিন হচ্ছে না তো ..?

privacy policy hacking

যারা এপটি ব্যবহার করে ভবিষ্যতে আপনার চেহারা কেমন হবে তা দেখার চেষ্টা করছেন তাদের অধিকাংশ সামান্য মজা নিতে এমনটা করছেন ।তবে এই এপটি কিছু গুরুত্বপুর্ন বিষয় জানা জরুরী এই এপ ব্যবহার কারীদের ।

কৃতিম বুদ্ধিমতাকে কাজে লাগিয়ে এবং কিছু ফিলটার ব্যবহার করে ভবিষ্যতে ব্যবহার কারীর চেহারা দেখতে কেমন হবে তা জানিয়ে দেয় এই FaceApp টি । এই এপটি প্রথমে প্রকাশ করা হয় ২০১৭ সালে । এপটি তৈরি করেছে রাশিয়ান কোম্পানী Wireless Lab । এপটি প্রথম সংসক্রন বাজিমাত করে দিয়েছিলো ।গুগল প্লে স্টোর ও এপ স্টোরে থাকা এই এপটি ২০১৯ সালে এসে ফের ভাইরাল হওয়া শুরু করেছে । বিশেষজ্ঞদের মতে এই ধরনের এপ বিনা কারনে ভাইরাল হয় না । এর পিছনে কোন না কোন কারন থাকে ।যা লেখা থাকে এটির Privacy Policy তে । সেখানে লেখা থাকে এপটি ব্যবহার কারীর কি কি তথ্য সংগ্রহ করবে এবং এই সব তথ্য কি ভাবে ব্যবহার করা হবে । আসল কথা এই যে অধিকাংশ ব্যবহার কারীরা এসব তথ্য সম্পর্কে বিন্দু মাত্র ধারনা রাখে না । ফলে তাদের তথ্য পাচার হওয়ার আসংখ্যা থেকেই যায় । FaceApp টি তাদের Privacy Policy তে জানিয়েছে তারা ব্যবহার কারীর IP Address, Browser Cookis, Lock File Device এর বিভিন্ন তথ্য এবং অবস্থান সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করে থাকে ।

একই সঙ্গে ব্যবহার কারী কোন কোন ওয়েব পেজ ব্যবহার করেছে ও ব্রাউজার থাকা addon সংক্রান্ত তথ্য নিয়ে থাকে এই এপটি । Privacy Policy তে এপ কত্তৃপক্ষ দাবি করেছে এপ ব্যবহার কারীর এই তথ্য তারা তৃত্বীয় পক্ষের কাছে বিক্রি করে না । এরকম কথা ফেসবুক কত্তৃপক্ষ অনেক আগে থেকেই করে আসছিলো । সমপ্রতি তথ্য গোপনীয়তা লঙ্ঘনের কারনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম Facebook কতৃপক্ষকে $৫০০ কোটি ডলার জরিমানা করেন যুক্তরাষ্ট্রের ফেদারেল ট্রেট কমিশন

Face App ব্যবহারে আগে ও পরের ছবি

FaceApp-Photo-edit

ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ হতে FaceApp:

এই এপ মুলত তাদের এই কাজটি মুর্খতার সামিল এবং এর মাধ্যেমে ১টি জিনিসের চর্চা করছে । জ্যোতিষবিদ চর্চা ।

জ্যোতিষবিদ চর্চাঃ

জ্যোতিষ যেমন ধোকা এবং কৌশলের আশ্রয় নিয়ে আপনার মিথ্যা ভবিষ্যত বানী করে থাকে । সেরকম ভাবে এই এপটি যান্ত্রিক কৌশলের আশ্রয় নিয়ে আপনার ভবিষ্যত রুপ প্রদর্শন করছে । আপনি কি জানেন ভবিষ্যতে আপনার চেহারা দেখতে কেমন হবে..? তার চেয়ে বড় কথা আপনি কি করে সিউর হচ্ছেন যে আপনি ৬০-৮০ বছর বাঁচবেন । বা আপনি কিভাবে সিউর হচ্ছেন যে আপনি বুড়ো হয়ে মারা যাবেন ? আপনি কি গায়েবের খবর রাখেন..? কখনোই না । FaceApp আবিষ্কারক কখনোই গায়েবের খবর রাখে না । একমাত্র আল্লাহ তায়ালাই জানেন আপনি বুড়ো হয়ে মারা যাবেন নাকি যুবক অবস্থাতেই মারা যাবেন। একমাত্র তিনিই নির্ধারণ করেন আপনার জন্ম-মৃত্যু !

আল্লাহ আমাদেরকে গোমরাহী থেকে ফিরিয়ে আনুন এবং সঠিক পথ দেখান। আমিন।

আসুন আমার সবাই সতর্ক হই। Face App বা এই জাতীয় কোন প্রকার অ্যাপ ব্যবহার করে নিজেদের সুন্দর চেহারাকে বিকৃত করা কিংবা বুড়ো বানানো থেকে বিরত থাকি । ভবিষ্যতের জ্ঞান এক আল্লাহর কাছেই আছে তা মনে প্রানে বিশ্বাস করি । একমাত্র আল্লাহকে ভয় করি এবং প্রতিটা মুহুর্তে মৃত্যুর কথা স্বরণ করি । প্রতিটা মুহুর্তে মৃত্যুর কথা স্বরণ করে আখেরাতের জন্য বেশি বেশি করে আমল করি । আল্লাহ্ তায়ালা যেনো আমাদের সঠিক পথ দেখান । আল্লাহ আমাদের তাওফিক দিন । আল্লাহ আমাদের সঠিক বুঝ দান করো । “আমিন”

লেখাটি সম্পুর্ন পড়ার জন্য আপনাকে “ধন্যবাদ”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here